মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০২:০৩ পূর্বাহ্ন
প্রধান সংবাদ :
চীনের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়লেন প্রধানমন্ত্রী বান্দরবান জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে বেনজীরের আহমদের সম্পত্তি বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে পাহাড় ধসে একজনের মৃত্যু নাইক্ষ্যংছড়িতে ঘুমন্ত স্বামীর অন্ডকোষ ব্লেড দিয়ে কেটে দিল স্ত্রী! লুট করা অস্ত্র ফেরত দিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার আহ্বান : মানব বন্ধনে বম জনগোষ্ঠী থানচিতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত বান্দরবানে ও রয়েছে বেনজীর আহমেদের সম্পদ, দেখাশোনা করেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকা ধর্মঘটে ভোগান্তিতে যাত্রীরা -থানচি সীমান্তবর্তী এলাকায় নিরাপত্তার বাহিনীর সাথে গোলাগুলিতে কেএনএফ দুই সদস্য নিহত থানচিতে কেএনএফ সতর্কতায় বিজিবি’র গণসংযোগ

পাহাড়ের পাদদেশে মিষ্টি কুমড়ার চাষ; দাম কমে হতাশ চাষীরা

সুফল চাকমাঃ
  • প্রকাশিতঃ শনিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২১
  • ১০০০ জন নিউজটি পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃপার্বত্যঞ্চল বান্দরবানে আবহাওয়া অনুকূল ভালো হওয়াই পাহাড়ের পাদদেশে বর্ষা মৌসুমে মিষ্টি কুমড়া চাষ উৎপাদিত হয়েছে। বিভিন্ন পাহাড়ের ভর্তি মিশ্র ফলন চাষে আবাদ বেড়ে যাওয়া কৃষক মুখে ফুটেছে মিষ্টি হাসি । পাহাড়ে কিংবা সমতলে জুমের চাষের পাশাপাশি বিভিন্ন ফলজ বাগানের মিষ্টি কুমড়া চাষ করে আর্থিকভাবে লাভের মুখ দেখছে পাহাড়ের জুম চাষিরা। সেই উৎপাদিত মিষ্টি কুমড়া নানাবিধ পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ আর খেতে সুস্বাদু, তাই এই সবজির চাহিদাও বাড়ছে বহুগুণে। দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করা যায় বলে স্থানীয় হাট-বাজারগুলোতে বছর জুড়ে জুমের মিষ্টি কুমড়া পাওয়া যায়।

চাষিদের কাছ থেকে মিষ্টি কুমড়া ক্রয় করছে ক্রেতা। ছবি-পাহাড় কন্ঠ

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বান্দরবান শহর হতে ২৫ কিলোমিটার দূরে চিম্বুক, টংকাবতী, ও বগালেক এর পথের ধারে ধারে স্তুপ করে রাখা হয়েছে মিষ্টি কুমড়া। শ্রমিকেরা জুম থেকে বহন করে আনছেন আর ব্যবসায়ীরা মিষ্টি কুমড়া মেপে মেপে ট্রাকে তুলছেন। আগে জুমিয়ারা শুধু জুম চাষের উপর নির্ভরশীল ছিলেন তারা এখন ধীরে ধীরে জুম চাষের সাথী ফসল হিসেবে বিভিন্ন সবজী ও ফলদ বাগানের দিকে ঝুঁকছেন।

বান্দরবান থেকে মিষ্টি কুমড়া নিয়ে যাচ্ছে শহরে। ছবি- পাহাড় কন্ঠ 

কৃষি বিভাগ তথ্যনুযায়ী, বান্দরবানে ২০২০-২১ গেল অর্থবছরে ২৪২ হেক্টর জমিতে ৪ হাজার ১ শত ৫৪ মেট্রিক টন চাষ হয়েছে। তবে ২০২১- ২২ চলতি বছরে ২৪৮ হেক্টর জমিতে ৪ হাজার ৫শত ১২ মেট্রিক টন মিষ্টি কুমড়া উৎপাদন হয়েছে।

জুম চাষী কিংকু ম্রো কার্বারী বলেন, ৫আড়ি (৫০ কেজি ধান) জুমে ধান করেছি সাথে মিষ্টি কুমড়া। এবছর ৩৫০মণ পেয়েছি তবে আগের তুলনায় দাম কম, এবার প্রতিমণ ৫০০টাকায় বিক্রি করেছি যা গত বছর প্রতি মণে ৮০০-১০০০টাকায় বিক্রি করেছিলাম। তিনি আরো বলেন শুধু জুম চাষের উপর নির্ভর না করে বছর ব্যাপী বিভিন্ন সবজি ও ফলমুল উৎপাদন করে কিভাবে অর্থনৈতিক ভাবে লাভবান হওয়া যায় আমরা সেই চেষ্টায় করে যাচ্ছি।

আরেক জুম চাষী লাই ম্রো বলেন ৪আড়ি (৪০কেজি ধান )জুম চাষের জায়গায় মিষ্টি কুমড়ার চাষ করেছি এযাবৎ ২৬০মণ প্রতি কেজি ১২টাকা করে বিক্রি করেছি। গত বছরের তুলনায় দাম কম। মিষ্টি কুমড়া কতোদিন সংরক্ষণ করা যায় জিজ্ঞাসা করা হলে কমপক্ষে ৬-৭মাস পর্যন্ত মিষ্টি কুমড়া সংরক্ষণ করা যায় বলে জানান।

ব্যবসায়ী ইউসুফ বলেন চিম্বুক, বগালেক,টংকাবতী এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকার উৎপাদিত মিষ্টিকুমড়া প্রথমে চট্টগ্রাম আড়তে নিয়ে যাওয়া হয় তারপর সেখান থেকে চাহিদা অনুযায়ী সারাদেশে সরবরাহ করা হয়। প্রতি মণ কতো করে ক্রয় করে চট্টগ্রামে কতো করে বিক্রি করেন ব্যবসায়ী ইউসুফকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন চিম্বুক এলাকা থেকে ১২-১৩টাকায় কেজি ক্রয় করে চট্টগ্রামে আড়তে প্রতি কেজি ১৮-২০টাকায় বিক্রি করি।

পণ্যবাহী ট্রাক ড্রাইভার হামিদ বলেন, পাহাড়ের উচুঁ নিচু আকাঁ-বাকাঁ রাস্তা তাই প্রতি ট্রাকে ৫০-৬০মণ বহন করেন সমতল রাস্তা হলে ১শত ১২০ মণ বহন করা যায় বলে জানান।

বান্দরবান জেলার কৃষি সম্প্রসার অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এম এম শাহনেয়াজ বলেন বান্দরবান জেলায় যথেষ্ট পরিমানে পাহাড় ওসমতলে মিষ্টি কুমড়ার আবাদ হয়। বান্দরবানের মিস্টি কুমড়া অত্যন্ত সুস্বাদু। সেকারনে চাহিদাও বেশী, উৎপাদনে বান্দরবানের চাহিদা মিটিয়ে চট্টগ্রামে সহ সারাদেশে সরবরাহ করা হয়।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আর নিউজ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৮ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ২০:১৭ অপরাহ্ণ
  • ৫:১৯ পূর্বাহ্ণ
© All rights reserved ©paharkantho.com-২০১৭-২০২১
themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!